স্বাস্থ্য ও ফিটনেসজীবনযাপন

Blood Pressure : বাবা রামদেবের এই পরামর্শ মেনে চলুন, এক সপ্তাহেই স্বাভাবিকে ফিরে আসবে Blood Pressure

বর্তমান প্রায় মানুষেরাই প্রেশার ও কোলেস্টেরলের সমস্যায় ভোগেন, এই সমস্যা থেকে বাঁচতে চাইলে আপনাকে অনেকে বেশি সতর্ক হতে হবে। বদলে ফেলতে হবে নিজের জীবন প্রণালী ও খাদ্যাভ্যাস। এই নিয়ম কয়টি মনে চললেই খুব কম সময়ে নিজের blood pressure o cholesterol এর সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

Doctors hand Holding a pleasure checking machine

বর্তমান আমাদের জীবন প্রণালীর কোনও নীতি নিয়ম নেই, কেও করতে চান না শারীরিক পরিশ্রম। যন্ত্র ও প্রযুক্তির সাহায্যে চলছে কাজ। যার ফলে মানুষের ভুগতে হচ্ছে নানান রোগে। পরিশ্রম না করার ফলে দেখা দিচ্ছে বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা। এছাড়াও অন্যান্য কিছু সমস্যা রয়েছে আমাদের, বাইরের বিভিন্ন ফাস্ট ফুডের কথা ভুলে গেলেও চলবে না, এই ফাস্ট ফুডের ফলে শরীরে বহু সমস্যা দেখা দিতে পারে।

যোগ গুরু বাবা রামদেব এই বিষয়ে বলেন, এই ধরনের অভ্যাস আমাদের খুব তাড়াতাড়ি পাল্টে ফেলতে হবে। এবং তার সাথে মেনে চলতে হবে এই কয়েকটি বিষয়।

বর্তমান প্রায় প্রতিটি ঘরে ঘরে ডায়াবিটিসের রোগী দেখা যায়, এই ক্ষেত্রে নিম হল দারুণ ঔষুধি খাবার। এই নেমে রয়েছে অ্যান্টিডায়াবিটিক উপাদান, যা ডায়াবিটিস দূর করতে সাহায্য করে। ডায়াবিটিস রোগের জন্য নিম দারুণ উপকারী হতে পারে। এক্ষেত্রে নিমের সাথে একটু তুলসী মিলিয়ে খেলে কোলেস্টেরল এবং প্রেশার দুটোই নরমাল রাখতে সাহায্য করবে।

কোলেস্টরলের জন্য অন্য একটি উপকারী খাবার হলো অ্যালোভেরা। সামান্য অ্যালেভেরার সঙ্গে আমলকীর জ্যুস মিশিয়ে পান করেন। এই মিশ্রণটি পেট ভালো রাখতে সাহায্য করে ও কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে। অ্যালোভেরা ও আমলকীতে রয়েছে উপযুক্ত পরিমাণের পরিমাণের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের জন্য খুব উপকারী। রোজ এই অ্যালোভেরা ও আমলকীর জ্যুস খেতে পারলে খুব উপকার পেতে পারেন।

আমন্ডের সঙ্গে একটু কালো মরিচ মিশিয়ে গরম দুধের সঙ্গে খেতে পারলে দেখবেন কোলেস্টরলের সমস্যা অনেকটাই কমে গেছে। তবে তার সাথে সাথে নিয়ন করে যোগাভ্যাস করা অতি প্রয়োজন। এর সাথেই বাইরের বিভিন্ন খাবার বর্জন করে ঘরের খাবার খান এবং খাবারের পাতে থাকুক সবুজ সবজি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button