ওয়েব সিরিজবিনোদন

Web series: মুক্তি পেতে চলেছে ওয়েব সিরিজ ‘লাভ লাইফ অ্যান্ড স্ক্রু আপস’

Web series: বলিউড ইন্ডাস্ট্রির তারকাখচিত বিভিন্ন অভিনেতা অভিনেত্রীদের ব্যক্তিগত সম্পর্ক এবং কিছু কার্যকলাপ মাঝেমাঝেই টপ ট্রেন্ডে পরিণত হয়। গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের ঝকমকে জীবনে থাকা তারকারা কখন কবে কি করবেন সেই নিয়ে বেশ উত্তেজিত থাকেন তাঁদের অনুরাগীরা। এমনকি মাঝে মাঝে সোশ্যাল মিডিয়াতে আলোচনা হয় সিনেমা শুটিং এর বিভিন্ন অজানা কথা। সম্প্রতি ওয়েব সিরিজ ‘লাভ লাইফ অ্যান্ড স্ক্রু আপস’ এর কিছু অজানা তথ্য সামনে এসেছে।

অনেক সময় অভিনেতা-অভিনেত্রীরা তাদের দৃশ্যে এতটাই হারিয়ে যায় যে তারা বুঝতেই পারে না কখন পরিচালক কাট বলেছেন। শুটিংয়ের সময় নিজের চরিত্রের প্রতি এমন মগ্নতা মাঝে মাঝেই হয়ে থাকে তারকাদের। সম্প্রতি এমনই হয়েছে ওয়েব সিরিজ “লাভ লাইফ অ্যান্ড স্ক্রু আপস” এর শুটিংয়ের সময়। আসলে একটি বিশেষ ইন্টিমেট সিনে অভিনয় করার কথা ছিল সোনালী রাউত এবং যুবরাজ পরাশরের। আর সেই শুট হওয়ার সময় তারা একে অপরে হারিয়ে যায় এবং পরিচালকের কাট বলার পর হুঁশ ফেরে।

আসলে সোনালী রাউত এবং যুবরাজ পরাশর দুজনই প্রথম অন ক্যামেরা এমন ইন্টিমেট সিন শুট করছিলেন। তাই তারা কোন অনুশীলন ছাড়াই পরিচালককে কোনো কাট ছাড়া একেবারে সিন করার অনুরোধ করেছিলেন। সেইমতো শুরু হয় দুই তারকার শাওয়ার ইন্টিমেট সিন। পরিচালক কৌস্তভ শর্মা ক্যামেরাম্যান কপিলকে শুট করার নির্দেশ দিলে, দুই তারকা একে অপরকে জড়িয়ে ধরে অভিনয় শুরু করেন। সোনালি এবং যুবরাজ দৃশ্যটিতে এতটাই মগ্ন ছিলেন যে তারা জানেন না যে তারা দুজনই শুটিং করছেন। পরিচালক কপিল ক্যামেরাম্যানকে শুটিং চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন কারণ তিনি দৃশ্যে তার কাঙ্ক্ষিত সমস্ত ফুটেজ ঠিকমতো পেয়ে যাচ্ছিলেন।

যখন তিনি মোটামুটি কাঙ্ক্ষিত সমস্ত ফুটেজ পেয়ে যান তখন তুই তারকার কানের কাছে গিয়ে কাট বলেন পরিচালক। সোনালি এবং যুবরাজ দুজনেই হতবাক হয়েছিলেন কারণ দৃশ্যটির শুটিং করার সময় তারা কী করছেন তা তারা জানেন না। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই সিরিজটি আগামী বছরের মধ্যে OTT তে মুক্তি পাবে। এতে অভিনয় করছেন জিনাত আমানও।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button