টেক নিউজ

Maruti Ertiga : টয়োটার দাদাগিরি শেষ করতে মাঠে নামলো মারুতির এই গাড়ি

Maruti Ertiga দেশের অন্যতম জনপ্রিয় গাড়ি। টয়োটা ইনোভার পাশাপাশি এটি দেশের অন্যতম জনপ্রিয় সেভেন সিটার গাড়ি। মারুতির অন্যান্য গাড়ির মতো Maruti Ertiga তেও কম দামে পাওয়া যায় ভালো মাইলেজ। ২৬ কিমি প্রতি লিটার এই গাড়ি মাইলেজ দিতে পারে। বাজারেও এই গাড়ির প্রচুর চাহিদা রয়েছে। সবচেয়ে ভাল দিক হল মারুতি সুজুকি আর্টিগাও সিএনজিতে পাওয়া যাচ্ছে। গত বছরের মার্চ মাসে এই গাড়িটি আপডেট করা হয়েছিল এবং তারপর থেকে এর চাহিদা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

আপডেটেড Maruti Ertiga গাড়িতে ১.৫ লিটার পেট্রল ইঞ্জিন দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ইঞ্জিনটি ১০২ বিএইচপি পাওয়ার এবং ১৩৭ এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে সক্ষম। ইঞ্জিনটি একটি ৫ স্পিড ম্যানুয়াল গিয়ারবক্সের সাথে যুক্ত। সিএনজি ইঞ্জিনটি ৫ স্পিড ম্যানুয়াল গিয়ারবক্স সহ ৮৭ বিএইচপি পাওয়ার এবং ১২১.৫ এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে সক্ষম। ১.৫ লিটার পেট্রল ইঞ্জিনে ২০.৫১ কিমি প্রতি লিটার এবং ২০.৩ কিমি প্রতি লিটার মাইলেজ পাওয়া যায়। একই সময়ে সিএনজি অপশনে ২৬.১১ কিমি প্রতি কেজি মাইলেজ পায়।

দিল্লিতে এই গাড়ি বুকিংয়ের জন্য অপেক্ষার সময়সীমা ৪০ থেকে ৯০ সপ্তাহ পর্যন্ত হতে পারে। গাড়ির ব্যাপক চাহিদার কারণে ওয়েটিং টাইম একটু বেশি মনে হতে পারে। বুকিংয়ের জন্য আপনার নিকটতম মারুতি সুজুকি ডিলারশিপের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। বুকিংয়ের জন্য আপনাকে একটি টোকেন অর্থ জমা দিতে হবে এবং তারপরে বুকিং নিশ্চিত করা হবে।

মারুতি সুজুকি আর্টিগা চারটি সংস্করণে পাওয়া যাবে। কথা, এলএক্সআই, ভিএক্সআই, জেডএক্সআই এবং জেডএক্সআই + । এতে থাকছে ৭টি কালার অপশন। মারুতি সুজুকি আর্টিগা’র এলএক্সআই (ও) এমটি ভ্যারিয়েন্টের দাম শুরু হচ্ছে ৮,৬৪,০০০ টাকা থেকে। একই সঙ্গে টপ ভেরিয়েন্ট জেডএক্সআই প্লাস এর দাম ১৩,০৮,০০০ টাকা পর্যন্ত। গাড়িটি বাজারে রেনো ট্রাইবার এবং হুন্দাই আলকাজারের মতো গাড়ির সাথে প্রতিযোগিতা করে।

Related Articles

Back to top button